কতিপয় আলামত (বাদ্যযন্ত্র, গায়িকা, মদ্যপান, ভূমিকম্প, চেহারা বিকৃতি, যিনা)

By | Wed 19 Rabi Al Awwal 1437AH || 30-Dec-2015AD

জামে তিরমিজী (ইফাঃ) ২২০৮| বুখারি | মুসলিম

মাহমূদ ইবন গায়লান (রহঃ) …….. আনাস ইবন মালিক রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, আমি তোমাদের এমন একটি হাদীস শুনাচ্ছি যা আমি রাসূলুল্লাহ ﷺ -এর কাছ থেকে শুনেছি এবং আমার পরেও এমন কেউ তোমাদেরকে এই হাদীসটি রিওয়ায়াত করতে পারবে না যে সরাসরি তা রাসূলুল্লাহ ﷺ থেকে শুনেছেন,

রাসূলুল্লাহ ﷺ বলেছেনঃ কিয়ামতের আলামত হল,

  1. ইলম উঠিয়ে নেওয়া হবে,
  2. অজ্ঞতার প্রকাশ ঘটবে,
  3. যিনা বিস্তার লাভ করবে,
  4. মদ্যপান করা হবে,
  5. নারীদের আধিক্য ঘটবে,
  6. পুরুষের সংখ্যা হ্রাস পাবে। এমনকি পঞ্চাশজন মহিলার মাত্র একজন তত্বাবধায়ক থাকবে।

জামে তিরমিজী (ইফাঃ) ২২১৩ | মিশকাত ৫৪৫১

সালিহ ইবন আবদুল্লাহ (রহঃ) ……… আলী ইবন আবূ তালিব রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ ﷺ বলেছেনঃ আমার উম্মত যখন এ পনেরটি বিষয়ে লিপ্ত হবে তখন তাদের উপর মুসিবত নিপতিত হবে। জিজ্ঞাসা করা হল,সেগুলো কি ইয়া রাসূলাল্লাহ? তিনি বললেন,

  1. যখন গনীমত পরিণত হবে ব্যক্তিগত সম্পদে,
  2. আমানত পরিণত হবে লুটের মালরূপে,
  3. যাকাত গণ্য হবে জরিমানা রূপে,
  4. পুরুষরা তাদের স্ত্রীদের অনুগত হবে আর মা‘দের হবে অবাধ্য,
  5. বন্ধুদের সাথে তো সদাচার করবে অথচ পিতার সঙ্গে করবে দুর্ব্যবহার,
  6. মসজিদে শোরগোল করা হবে,
  7. নিকৃষ্টতম চরিত্রের লোকটি হবে তার সম্প্রদায়ের নেতা,
  8. কেবল অনিষ্টের ভয়ে কারণ ব্যক্তিকে সম্মান করা হবে,
  9. মদপান করা হবে,
  10. রেশম বস্ত্র পরিধান করা হবে,
  11. গায়িকা ও বাদ্যযন্ত্রের রেওয়াজ চলবে,
  12. উম্মতের শেষ যুগের লোকেরা প্রথম যুগের লোকদের অভিসম্পাত করবে

তখন তোমরা অপেক্ষা করবে অগ্নিবায়ু বা ভূমিধ্বস বা চেহারা বিকৃতির আযাবের।


জামে তিরমিজী (ইফাঃ) ২২১৪ | মিশকাত ৫৪৫০

আলী ইবন হুজর (রহঃ) ……… আবূ হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ ﷺ বলেছেন,

  1. গনীমত সম্পদ যখন ব্যক্তিগত সম্পদ বলে গণ্য করা হবে,
  2. যাকাত হবে জরিমানা বলে,
  3. দ্বীনি উদ্দেশ্য ছাড়া ইলম অর্জন করা হবে,
  4. পুরুষরা স্ত্রীদের আনুগত্য করবে, এবং মা‘দের অবাধ্য হবে,
  5. বন্ধুদের নিকট করবে আর পিতাকে করবে দূর,
  6. মসজিদে শোরগোল করবে,
  7. পাপাচারীরা গোত্রের নেতা হয়ে বসবে,
  8. নিকৃষ্ট লোকেরা সমাজ নেতা হবে,
  9. অনিষ্টের আশংকায় একজনকে সম্মান করা হবে,
  10. গায়িকা ও বাদ্যযন্ত্রে বিস্তার ঘটবে,
  11. মদ্যপান দেখা দিবে,
  12. উম্মতের শেষ যুগের লোকেরা প্রথম যুগের লোকদেরকে অভিসম্পাত করবে

তখন তোমরা অপেক্ষা করবে অগ্নিবায়ু, ভূমিকম্প, চেহারা বিকৃতি, পাথর বর্ষণের আযাবের এবং আরো আলামতের যা পরপর নিপতিত হতে থাকবে, যেমন একটি পুরান হারের সূতা ছিড়ে গেলে একটার পর একটা দানা পড়তে থাকে।


জামে তিরমিজী (ইফাঃ) ২২১৫|

’আববাদ ইবন ইয়াকূব কূফী (রহঃ) …….. ইমরান ইবন হুসায়ন রাদিয়াল্লাহু আনহু থেকে বর্ণিত যে, রাসূলুল্লাহ ﷺ বলেছেনঃ

এই উম্মতের জন্য ভূমিধ্বস,চেহারা বিকৃতি এবং পাথর বর্ষণের আযাব রয়েছে। জনৈক মুসলিম ব্যক্তি তখন বললেন, ইয়া রাসূলুল্লাহ,কখন হবে তা? তিনি বললেন, যখন গায়িকা ও বাদ্যযন্ত্রের বিস্তার ঘটবে এবং মদ্পান দেখা দিবে


মুসনাদে আহমাদ।

হযরত ইবনে মাসউদ (রাযীঃ) বর্ণনা করেন যে, রাসুলুল্লাহ ﷺ এরশাদ করিয়াছেন, কিয়ামতের আলামতসমুহ হইতে একটি আলামত এই যে, এক ব্যাক্তি অপর ব্যক্তিকে শুধু পরিচয়ের ভিত্তিতে সালাম করিবে (মুসলমান হওয়ার ভিত্তিতে নয়)।


আবদুল্লাহ ইবনে উমার (রাঃ) থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম আমাদের দিকে এগিয়ে আসলেন, অতঃপর তিনি বললেন,
“হে মুহাজিরগণ! তোমরা পাঁচটি বিষয়ে পরীক্ষার সম্মুখীন হবে। তবে আমি আল্লাহর কাছে আশ্রয় প্রার্থনা করছি যেন তোমরা তাতে পতিত না হও। (সেই ৫টি বিষয় হচ্ছে)
(১) যখন কোন জাতির মধ্যে প্রকাশ্যে অশ্লীলতা ছড়িয়ে পড়ে (যেমন সুদ, ঘুষ, যিনা ইত্যাদি) তখন সেখানে প্লেগ মহামারী আকারে দেখা দিবে। তাছাড়া এমন সব ব্যাধি ছড়িয়ে পড়বে, যা পূর্বেকার লোকেদের মধ্যে কখনো দেখা যায়নি।
(২) যখন কোন জাতি ওযন ও পরিমাপে কারচুপি করবে, তখন তাদের উপর নেমে আসবে দুর্ভিক্ষ, কঠিন বিপদ-মুসীবত; যালিম শাসক গোষ্ঠী তাদের উপর নিপীড়ন করবে।
(৩) যখন কোনো জাতি তাদের ধন সম্পদের যাকাত আদায় করে না, তখন আসমানের বৃষ্টি বন্ধ করে দেয়া হবে। যদি ভূ-পৃষ্ঠে চতুস্পদ জন্তু (গরু, ছাগল, ভেড়া, কুকুর, ঘোড়া ইত্যাদি) না থাকতো তাহলে আর বৃষ্টিপাত হতো না।
(৪) আর যখন কোন জাতি আল্লাহ ও তাঁর রাসূলের অঙ্গীকার ভঙ্গ করে, তখন আল্লাহ তাদের উপর এক দুশমনকে ক্ষমতাসীন করেন, যে তাদের বংশোদ্ভত নয় এবং সে তাদের হাতে যা আছে তা কেড়ে নিবে।
(৫) আর যখন তোমাদের শাসকবর্গ আল্লাহর কিতাব মোতাবেক মীমাংসা করবে না এবং আল্লাহর নাযিলকৃত বিধানকে গ্রহণ করবে না, তখন আল্লাহ তাদের পরস্পরের মধ্যে যুদ্ধ বিগ্রহ লাগিয়ে দিবেন।”
– সুনানে ইবনে মাজাহ (ইফা:) ৪০১৯

Facebooktwittergoogle_plusredditpinterestlinkedinmail

Leave a Reply

Your email address will not be published.

*